শিরোনাম

ভিক্ষার টাকায় চলে মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলীর সংসার !!!

১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে নিজের জীবন বাজি রেখে দেশকে হায়নামুক্ত করতে পারলেও যুদ্ধ পরবর্তী জীবনযুদ্ধে পরাজিত সৈনিক সাতক্ষীরার তালার বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী আজ ভিক্ষা করে জীবন নির্বাহ করছেন শুধু তাই নয়, স্বাধীনতা বিরোধী একটি প্রভাবশালী চক্রের লোলুপ দৃষ্টি তাকে ভিটামাটি ছেড়ে স্ত্রীসন্তান নিয়ে পথে বসাতে উঠে পড়ে লেগেছে জীবনের শেষ প্রান্তে এসে চরম নির্যাতন, লাঞ্ছনা আর বঞ্চনার শিকার প্যারালাইসিস আক্রান্ত বৃদ্ধ মোহাম্মদ আলীর কাছে মানুষের করুণাই এখন বেঁচে থাকার একমাত্র অবলম্বন

উপজেলার মুড়াকলিয়া গ্রামের মোহাম্মদ আলী মোড়ল মাত্র ২১ বছর বয়সে ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েন। যুদ্ধ করেন ৯নং সেক্টরে মেজর জলিলের নেতৃত্বে। যুদ্ধের স্মৃতি সারাক্ষণ ভেসে উঠে তার মানসপটে। মোহাম্মদ আলী আবেগ জড়িত কণ্ঠে বলেন, যে লক্ষ্য সামনে রেখে সেদিন দেশকে স্বাধীন করেছিলাম, তার বাস্তবায়ন আজও ঘটেনি। স্বাধীনতা বিরোধী এক ব্যক্তি আমাকে ভিটা ছাড়া করতে পাঁয়তারা করছে। একদিকে ক্ষুধার জ্বালা, অন্যদিকে মামলার টাকা যোগাড় করতে প্রতিনিয়ত যুদ্ধ করতে হচ্ছে নিয়তির সঙ্গে

এদিকে বেসরকারি সংস্থাউওরণ মামলার ব্যয়ভার গ্রহণ করে। তারপরও জীবিকার তাগিদে সারাক্ষণ দুয়ারে দুয়ারে হাত পাততে হয় তাকে। দুই কিংবা ৫শটাকা নয়, তার চাহিদা মাত্র দুই টাকা। পরিচিত জনদের কাছে বয়সের ভারে ন্যুব্জ মোহাম্মদ আলীর হাত পাততে লজ্জা লাগে। তাই কারোর সান্নিধ্য পেলে শুধু ফ্যাল ফ্যাল করে চেয়ে থাকেন। / টাকা দিলেই হাত পেতে নেন। আর তা দিয়েই চলে তার সংসার। বর্তমানে তালার রাজপথে বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী একমাত্র লাঠিকে(ক্রাচ) সঙ্গী করে ছেঁড়া লুঙ্গি, আর পাঞ্জাবী পরিহিত ভিক্ষুকবেশী৭১ এর মুক্তিযোদ্ধার প্রতিচ্ছবি মাত্র

মোহাম্মাদ রাজিবুর রাহমান রাজীব । 

১২৬৯ বার পড়া হয়েছে সব মিলিয়ে ৩ বার পড়া হয়েছে আজ

মন্তব্য

আপনার ইমেইল গোপন থাকবে - আপনার নাম এবং ইমেইল দিয়ে মন্তব্য করুন, মন্তব্যের জন্য ওয়েবসাইট আবশ্যক নয়

*

indobokep borneowebhosting video bokep indonesia videongentot bokeper entotin videomesum bokepindonesia informasiku videopornoindonesia bigohot
Inline
jQuery(document).ready(function($) { /*$.removeCookie('dont_show', { path: '/' }); */ $('.popup-with-form').magnificPopup({ type: 'inline', preloader: false, }); if( $.cookie('dont_show') != 1) openFancybox(5000); }); function openFancybox(interval) { setTimeout( function() {jQuery('.efbl_popup_trigger').trigger('click'); },interval); }
Inline
jQuery(document).ready(function($) { /*$.removeCookie('dont_show', { path: '/' }); */ $('.popup-with-form').magnificPopup({ type: 'inline', preloader: false, }); if( $.cookie('dont_show') != 1) openFancybox(5000); }); function openFancybox(interval) { setTimeout( function() {jQuery('.efbl_popup_trigger').trigger('click'); },interval); }